Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / গাইবান্ধার ফুলছড়িতে হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি ইউপি সদস্য প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

গাইবান্ধার ফুলছড়িতে হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি ইউপি সদস্য প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

আগামি ৫ জানুয়ারি গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে উপজেলার এরেন্ডাবাড়ি ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে (ডাকাতিয়ারচর গ্রাম) সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন হত্যা মামলার চার্জশিটযুক্ত আসামি মো. শাহজামাল মন্ডল।

ইউপি সদস্য প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

গত বৃহস্পতিবার তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করেন বলে নিশ্চিত করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মিজানুর রহমান। তিনি গতকাল শনিবার বিকেলে বলেন, ওই ওয়ার্ডে মোট ১০ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। শাহজামাল মোরগ প্রতীক চেয়েছেন।

তাঁর বিরুদ্ধে করা মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়, ফুলছড়ি উপজেলার ডাকাতিয়ারচর গ্রামের পাশ্ববর্তী জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার লংকারচর গ্রাম। এই গ্রামের কৃষক সুমার আলী দীর্ঘদিন ধরে এক একরের বেশি জমি ভোগদখল করে আসছিলেন। চলতি বছরের ১০ ফেব্রæয়ারি সুমার আলী তার বোন জামাই চাঁন মিয়াকে নিয়ে জমিতে পানি সেচ দিচ্ছিলেন। এসময় জমি নিয়ে পূর্ববিরোধের জেরে ডাকাতিয়ারচর গ্রামের মো. শাহজামালের নেতৃত্বে তার লোকজন সুমার আলী ও চাঁন মিয়াকে জমিতে পানি সেচ দিতে নিষেধ করেন। পরে তারা ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে সুমার আলী ও চাঁন মিয়াকে এলোপাতাড়িভাবে মারধর করতে থাকে। এতে তারা দুইজনই গুরুতর আহত হন। পরে গুরুতর চান মিয়াকে উদ্ধার করে প্রথমে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ নিয়ে ১২ ফেব্রæয়ারি নিহতের শ্যালক সুমার আলী বাদী হয়ে শাহজামালকে প্রধান আসামি করে দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ছাড়া এই মামলায় আরও ১৪ জনকে আসামি করা হয়। চলতি বছরের ৩১ জুলাই পুলিশ শাহজামালসহ ১১ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেয়।

মামলার বাদী সুমার আলী বলেন, শাহজামাল একজন হত্যা মামলার পলাতক আসামি। কিন্তু তিনি কিভাবে ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন, তা বোধগম্য হচ্ছে না।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য প্রার্থী মো. শাহজামাল মন্ডলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি মোবাইলফোন ব্যবহার করছেন না। তবে তার পক্ষে ঘনিষ্টজন আবদুল লতিফ মুঠোফোনে বলেন, শাহজামাল মন্ডলের নামে দেওয়া অভিযোগপত্রের বিরুদ্ধে নারাজি আবেদন করা হয়েছে। এই ঘটনার সাথে শাহজামাল জড়িত নন বলে দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আবদুস সোবহান বলেন, কোন প্রার্থীর বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে তা যাচাই-বাছাই করে দেখা হবে।

About parinews