Breaking News
Home / জাতীয় / গোবিন্দগঞ্জে প্রাচীর ভাংচুর ও হত্যার হুমকি

গোবিন্দগঞ্জে প্রাচীর ভাংচুর ও হত্যার হুমকি

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে প্রাচীর ভাংচুর, জমি দখল, মারপিট ও হত্যার হুমকি দেওয়ায় বিজ্ঞ আদালতের নিষেধাঙ্গা।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত নয়াপাড়া গ্রামের মৃত-মজিদুল হকের ছেলে মো.হাবিবুল ইসলামের সাথে একই গ্রামের মৃত-তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আল-আমিন গংদের জমিজমা নিয়ে দ্বন্দ চলে আসছে। 
হাবিবুল ইসলাম জানান, দরবস্ত মৌজার জে,এল নং-১৪৬, সি.এস খতিয়ান নং-৯০, এস.এ খতিয়ান নং-৮৩, বি.আর.এস খতিয়ান নং-৫২০, সাবেক দাগ নং-৮৫৯, হাল দাগ নং-১৭৪৭ এর ৯ শতক দখলীয় জমি ২০০৩ সালে ১০৫৫১ নম্বর কবলা দলিল মুলে আবু জোবায়েরর নিকট থেকে ৪.৫০ শতক ও ১৯৯৯ সালে ১০৯২৮ নম্বর কবলা দলিল মুলে জাফুরুল ইসলামের নিকট থেকে ৪.৫০ শতক জমি ক্রয় করিয়া ওই জমিতে প্রাচীর, বাড়ী ঘর নির্মান এবং বিভিন্ন জাতের গাছ পালা লাগিয়েছে।
গত ১০ জুন সকাল ১০ ঘটিকার সময় পূর্ব শক্রতার জেরে আল-আমিন একদল সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোকজনসহ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হাবিবুলের ভোগদখলীয় জমিতে হামলা চালিয়ে প্রাচীর ভাংচুর করে। এতে বাধাঁ দিলে আল আমিন সহ তার বাহিনী হাবিবুল ইসলাম ও তার পরিবারের লোকজনকে জমি বেদখল এবং মারপিটসহ হত্যা করার হুমকি দেয়।  
হাবিবুল ইসলাম নিরুপায় হয়ে জমি নিজ দখলে রাখতে আল আমিন সহ ৭ জনকে বিবাদি করে গত ১৯ জুন বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট আদালত, গাইবান্ধায় ৩৭২/২২ নং একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত বাদীর অভিযোগ আমলে নিয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জকে নালিশী জমিতে শান্তি, শৃঙ্খলা বজায় ও জমির দখল বিষয়ে প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করার নির্দেশ দিয়েছেন।
বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশ মোতাবেক গত ২১ জুন গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইজার উদ্দিন থানার এ.এস আই আসাদুল ইসলামের মাধ্যমে ফৌঃ কাঃ বিঃ ধারা-১৪৪/১৪৫, স্মারক নং-৮০০/২২ এর আলোকে উভয় পক্ষকে উক্ত জমিতে শান্তি, শৃঙ্খলা বজায় রাখতে নোটিশ প্রদান করেছেন।

About parinews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*