Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / গোবিন্দগঞ্জে সংখ্যালঘু জমি বে-দখল থানায় অভিযোগ দিয়েও প্রতিকার মেলেনি

গোবিন্দগঞ্জে সংখ্যালঘু জমি বে-দখল থানায় অভিযোগ দিয়েও প্রতিকার মেলেনি

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃগাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কামারদহ ইউনিয়নের তারদহ গ্রামের মৃত-ভবানী চরণ ঘোষের দুই ছেলে চিরকুমার শ্রী পরিতোষ কুমার ঘোষ ও আশুতোষ কুমার ঘোষ এর পৈত্তিক জমির মধ্যে তারদহ মৌজার ৬৪৬, ৬৪২ ও ৬০১ দাগে ৮৮ শতক জমি ২০০৮ সালে একই ইউনিয়নের মৃত-মজিবর রহমানের ছেলে নুরুল ইসলাম নুনু (৬১) এর নিকট ২৯ হাজার টাকা মৌখিক চুক্তিতে বন্ধক রাখে। পরিবারটি সংখ্যালঘু হওয়ায় ওই জমি বে-দখল দিতে উঠে পড়ে লেগেছে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালীদের সহযোগিতায় নুনু মিয়া। ২৯ হাজার টাকা ফেরৎ দিয়ে মৌখিক চুক্তি অনুযায়ী জমি বন্ধকির হাত থেকে  উদ্ধার করতে গেলে নুনু মিয়া সাড়ে ৩ লাখ থেকে ৬ লাখ টাকা দাবী করে আসছে।
এ ঘটনায় কয়েক দফা ওই সংখ্যালঘু পরিবারের প্রধান শ্রী পরিতোষ কুমার ঘোষ থানা ও গাইবান্ধা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পাননি। 
পরিতোষ কুমার ঘোষ অভিযোগ করে বলেন, ওই বন্ধকি জমি ফেরৎ চাইতে গেলে  নুনু মিয়া ও তার দুই ছেলে আমজাদ হোসেন ও আনোয়ার হোসেনকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন সময় তারসহদর ভাই ও তাকে মেরে ফেলার জন্য বাড়িতে হামলা চালায় এবং হুমকি দেয়। এ ঘটনায় সে নিজে বাদী হয়ে থানা ও পুলিশ সুপার কার্যালয়ে একাধিক অভিযোগ করেছেন। এতে তিনি কোন প্রতিকার না পেয়ে চরম অসহায়ত্ব জীবন-যাপন করছেন। 
 এ ব্যাপারে গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইজার উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বক্তব্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

About parinews