Breaking News
Home / জাতীয় / গোবিন্দঞ্জের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী সুষ্মিতার জীবন বাচাঁতে এগিয়ে আসুন

গোবিন্দঞ্জের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী সুষ্মিতার জীবন বাচাঁতে এগিয়ে আসুন

গোবিন্দঞ্জের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী সুষ্মিতার জীবন বাচাঁতে এগিয়ে আসুন
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধা  জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শিবপুর ইউপির মহাদেবপুর গ্রামের বাসিন্দা ক্ষুদ্র সেলুন ব্যবসাযী গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভাস্হ ইসলামী ব্যাংকের পূর্বে ভাইভাই সেলুন এর রতন কুমার শীল (বর্তমান সেলুন মহিমাগন্জ রোড সেবা ক্লিনিকের উত্তর পশ্চিম) এর একমাত্র মেয়ে সরদারহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির  ছাত্রী  সুষ্মিতার জীবন বাচাঁতে সমাজের বিত্তবান, হৃদয়বানদের নিকট  আর্থিক সাহায়ো এগিয়ে আসবার জন্য আকুল অনুরোধ করেছেন ছোট্রমনি সুষ্মিতা ও তার পিতা মাতা।সুষ্মিতা গত ০৪/০৪/২০২২ তারিখে তার বাড়ি হতে অটোভ্যান যোগে স্কুলে যাবার পথে অসাবধানতা বসত গলায় ওড়না পেচিয়ে অটোভ্যান হতে ছিটকে পরে গুরুতর আহত হলে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্হ কমপ্লেক্সে ভর্তি করানোর পর চিকিৎসকগন বগুড়া শহিদ জিয়া মেডিক্যালে রেফার্ড করেন সেখানেও উন্নতি না হওয়ায় এক সপ্তাহ পরে  বগুড়ার  চিকিৎসকগণ রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন সেখানে দীর্ঘ প্রায় আড়াই মাস চিকিৎসাধীন থেকে উন্নতি না হওয়ায় হত ২৩ /০৬/২২ তারিখে অপারেশন এর জন্য ঢাকায় রেফার্ড করেছেন।কিন্তু সুষ্মিতার অসহায় গরীব পিতার ঢাকায় চিকিৎসা করানোর কোন  সাধ্য নেই। যেটুকুন ছিল সেটুকুন ও বিক্রয় করে এ যাবৎ চিকিৎসা চালিয়ে আজ নিঃস্ব।
বিধায় ছোট্র সুষ্মিতার জীবন বাচাতে আমাদের সমাজের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক, ধমীয় সেবামুলক সংগঠন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস আদালত, সহ দয়াবান, বিত্তবানদের নিকট বিনীত অনুরোধ করেছেন সুষ্মিতার অসহায় গরীব পিতা মাতা ও সুষ্মিতা নিজে।তাই আসুন আমরা আমাদের সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে যে যার সাধ্যমতো ছোট্র সুষ্মিতার সু চিকিৎসার জন্য অর্থ সহায়তা দিয়ে জীবন বাচাতে সাহায়ো করি।
সুষ্মিতার বাবা রতন শীল এর মোবাইল বিকাশ নং ০১৭৩৬০০২০৭৭। রতন এর বড় ভাই মত্তন সহ বর্তমান সেলুন দোকান, মহিমাগন্জ রোড সেবা ক্লিনিকের উত্তর পর্শ্চিমে।

About parinews