Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / ঝালকাঠিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উপর জেলেদের হামলা

ঝালকাঠিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উপর জেলেদের হামলা

ঝালকাঠি প্রতিনিধি :ঝালকাঠিতে মৎস অভিযানে গিয়ে মৌসুমি জেলেদের হামলার শিকার হয়েছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবেকুন নাহার এ সময় অভিযানে  ট্রলার চালক মো: কবির হোসেন (৩৫) আহত হয়েছে। ১৯ অক্টোবর মঙ্গলবার আনুমানিক সাড়ে এগারটার সময় জেলার সুগন্দা-বিষখালি নদীর মোহনা সংলগ্ন বিষখালি নদীর তীরবর্তী নাপিতেরহাট (নাপ্তারহাট )বাজার এলাকায় এ হামলা ঘটনা ঘটে।

এ বিষয় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবেকুন নাহারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি  জানান, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কিছু অসাধু মৎস ব্যবসায়ীরা মা ইলিশ শিকারের জন্য নদীতে কারেন্ট জাল ফেলে ‘মা’ ইলিশ ধরছে, সংবাদের ভিত্তিতে ‘মা’ ইলিশ রক্ষায় সরকারি ঘোষনা মোতাবেক প্রতিদিনের মত উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আজ সকালে ট্রলার যোগে মৎস অভিযানে যাই। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অসাধু জেলেরা সুগন্দা-বিষখালি নদীর মোহনা সংলগ্ন সুগন্ধা নদীতে  মা ইলিশ শিকার করছে।

সকাল থেকে সুগন্ধা নদীতে অভিযান চালিয়ে সুগন্ধা-বিষখালি নদীর মোহনা দিকে গেলে সুগন্ধা নদীতে থাকা জেলেরা দূর থেকেই আমাদের উপস্থিতি বুঝতে পেরে তারা কেউ কেউ নৌকা, আবার কেউ কেউ নৌকায় জাল তুলে জালে থাকা মাছ নিয়ে পলিয়ে যেতে শুরু করে। তাদের পিছু নিয়ে তাদেরকে ধরতে গেলে বিষখালি নদীর তীরবর্তী নাপিতেরহাট ( নাপ্তারহাট ) বাজার এলাকায় নৌকা রেখে নদীর কিনারে উঠে এ সময় অভিযানের ট্রলারটি সুগন্দা-বিষখালি নদীর মোহনা সংলগ্ন বিষখালি নদীর তীরবর্তী নাপিতেরহাট ( নাপ্তারহাট ) বাজার এলাকায় থামলে প্রায় ৩৫/৪০জনের একটি দল  দেশীয় অস্ত্র বৈঠা, রাম দা, লাঠি, ইট-পাটকেল হাতে নিয়ে আমাদের দিকে ধেয়ে আসে। আমরা বিষয়টি বুঝতে পেরে নদীর তীর থেকে ট্রলারটি সরিয়ে আনলে পিছন থেকে তারা আমাদের ট্রলারকে লক্ষকরে ইট-পাটকেল, বৈঠা, লাটি ছুড়তে শুরু করে। এ সময় জেলেদের ছোড়া একটি লাঠি ট্রলার চালক কবিরের শরীরে পড়লে কবির ট্রলারের নিচের অংশে পড়ে গিয়ে আহত হয়। পরে আমদের আত্মরক্ষার জন্য আনসার সদস্যরা ফাকা গুলি বর্ষন করে।
এ বিষয় তিনি আরো জানান, অভিযানে আমি সহ তিনজন আনসার সদস্য, আমার অফিসের সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর সহ অভিযানে থাকা সকলকে নিয়ে ঝালকাঠি চলে আসি। একই সাথে ট্রলার চালক কবিরের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

About parinews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*