Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রীর মাথা কেটে নিয়ে রাস্তায় যুবক

পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রীর মাথা কেটে নিয়ে রাস্তায় যুবক

পরিবর্তন নিউজ ডেস্ক

যা দেখে শিউরে উঠছে সবাই! খবর এনডিটিভির। ডান হাতে ধারালো অস্ত্র। আর বাঁ-হাতে ঝুলছে স্ত্রীর কাটা মুণ্ডু! বুক চিতিয়ে এভাবেই রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছে যুবক! ভয়ংকর এই দৃশ্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ছবি: সংগৃহীত

প্রতিবেদনে বলা হয়, নৃশংস এই ঘটনা ইরানের আহবাজ শহরের। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, মোনা হেইদারি নামের ১৭ বছরের তরুণীকে পরকীয়া সন্দেহেই খুন করা হয়েছে। স্বামী ও দেয়র মিলেই এই নৃশংস কাণ্ড ঘটিয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ। সোমবারের (৭ ফেব্রুয়ারি) মধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে দু’জনকে। এই ঘটনা রীতিমতো আলোড়ন তৈরি করেছে গোটা তেহরানে। এমনকি সে দেশে নারী নিরাপত্তা এবং গার্হস্থ হিংসা নিয়েও নতুন করে প্রশ্ন তুলেছেন বিদ্বজ্জনেরা। নারীদের বিয়ের বয়স বাড়ানোর দাবিও উঠেছে।

নিউজ এইটিনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে ইরানে ১৩ বছরে মেয়েদের বিয়ে করার আইন রয়েছে। গার্হস্থ হিংসা রুখতে এই বয়স বাড়ানোর দাবি উঠেছে৷ ইরানের এক আইনজীবীর জানান, এমন ঘটনা প্রায়ই ঘটছে। জানা গিয়েছে, মোনার বিয়ে যখন হয়েছিল তখন তার বয়স ছিল ১২। এরপর পরকীয়া সন্দেহে শ্বশুরবাড়িতে প্রতিনিয়তই অত্যাচারের শিকার হতো মোনা।

About parinews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*