Breaking News
Home / জাতীয় / পলাশবাড়ী ছোট ভগবানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে রাতে চলানো হয়  কোচিং সেন্টার

পলাশবাড়ী ছোট ভগবানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে রাতে চলানো হয়  কোচিং সেন্টার

 
 ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীর ছোট ভগবানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে কোচিং পরিচালনা করে আসছেন প্রধান শিক্ষক ও স্কুল পরিচালনা কমিটির সদস্য কামরুল হাসান। 
গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার মহদীপুর ইউনিয়নের ফুটানী বাজারের পার্শ্বে ছোট ভগবানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে স্কুল ছুটির পর থেকে রাত ৮.৩০ মিঃ পযর্ন্ত উক্ত স্কুলেরসহ আশেপাশের স্কুলের এক দুইশজন কমলমতি শিশু  শিক্ষার্থীদের নিয়ে কোচিং পরিচালনা করে আসছেন উক্ত স্কুল পরিচালনা  কমিটির সদস‍্য কামরুল হাসান এবং  প্রধান শিক্ষক। প্রতি শিক্ষার্থীদের প্রতিমাস কোচিং ফি বাধ্যতামূলক আদায় করা হচ্ছে ৩০০ টাকা এমন অভিযোগ শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের। স্কুলটির ভবন ও বিদ‍্যুৎ ব‍্যবহার করে এসব কোচিং পরিচালনা করা হচ্ছে। গতকাল ২৫ জুন সন্ধ্যার পর ছোট ভগবানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে গিয়ে দেখাযায়, উক্ত স্কুলের ৭৮ জন কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীসহ আশপাশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিশু শিক্ষার্থীদের নিয়ে এ কোচিং পরিচালনা করা হচ্ছে।  
এব‍্যাপারে প্রধান শিক্ষক রংপুরে টেনিংয়ে আছেন বলে দায়িত্বরত সহকারী শিক্ষক ছামছুল ইসলাম জানান। তিনি আরো জানান, যেহেতু এটি সামাজিক প্রতিষ্ঠান এখানে কোচিং পরিচালনায় বাধা নেই। স্কুল পরিচালনা কমিটির সদস্য ও কোচিং সেন্টার পরিচালনায় দায়িত্বে কামরুল হাসান জানান, কোচিং করতে বাধা কোথায়। সবখানেই তো কোচিং চলছে। 
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমা বেগম জানান, তারা স্কুলে কোচিং কেন করাবে,এটা তো কোন আইনসিদ্ধ কাজ না। এব‍্যাপারে প্রধান শিক্ষককে শোকজ করা হবে। তিনি যোগ করে বলেন,আপনাদের উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের প্রধান শিক্ষকেরা এত খারাপ তা আমার জানাছিল না। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান নয়ন জানান, কোচিংয়ের সঙ্গে জড়িত দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব‍্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। (সংবাদটি জনস্বার্থ সুরক্ষা আইনে প্রকাশ )

About parinews