Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / পলাশবাড়ীর হাটে সবজির দান বাক্স

পলাশবাড়ীর হাটে সবজির দান বাক্স

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির তালিকায় পিছিয়ে নেই সবজির বাজার। রমজান মাসে আগুনে ঘি ঢালার মতো অবস্থা, কারণ আরও বেড়েছে দুধ-ডিম, সবজিসহ সব পণ্যের দাম।এতে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে পলাশবাড়ী স্বেচ্ছা ব্লাড ফাইটার্স নামে স্বেচ্ছাসেবী একটি সংগঠন। তারা নিম্ন আয়ের জনগণের মধ্যে বিনামূল্যে সবজি বিতরণ করছেন। উপজেলার সর্ববৃহৎ কালিবাড়ী হাট ঘুরে দেখা যায়, পৃথক তিনটি স্থানে বসানো হয়েছে সবজি ডোনেট বক্স। সেখানে সাইন বোর্ডে লিখা রয়েছে, ‘যাদের সার্মথ্য আছে তারা ডোনেট বক্সে সবজি রাখবেন। আর যাদের সবজি কেনার টাকা নাই তারা ডোনেট বক্স থেকে সবজি নিতে পারবেন। ’ ফলে অনেকে এসে ডোনেট বক্সে সবজি রাখছেন আবার অনেকে সেখান থেকে বিনামূল্যে সবজি নিয়ে যাচ্ছেন।পলাশবাড়ী স্বেচ্ছা ব্লাড ফাইটার্সের পরিচালক আব্দুস সালাম মাসুদ ও নাঈম আকন্দ জানান, যদিও আমাদের মূল লক্ষ্য রক্ত সংগ্রহ এবং যাদের জরুরি রক্তের প্রয়োজন, তাদের পাশে দাঁড়ানো। কিন্তু দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধিতে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষগুলো কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন। রমজান মাসে তারা আরও প্রতিকূলতার সম্মুখীন হচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আমাদের এ ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।
তারা আরও জানান, রমজান উপলক্ষে স্থানীয় সরকারি খাদ্যগুদাম মসজিদে মাসব্যাপী ফ্রি কোরআন শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাতে এলাকার নারী-পুরুষের মধ্যে দ্বীনের আলো ছড়িয়ে পড়ে।সবজি পেয়ে পলাশবাড়ী সদরের উদয়সাগর গ্রামের ছকিনা বেগম, আন্দুয়া গ্রামের বেলাল মিয়া ও পাশের সাদুল্লাপুর উপজেলার আলিপুরের হযরত আলী জানান, বাজারে সব কিছুর দাম বেশি। আমরা খেটে খাওয়া মানুষ। রোজা রেখে কাজ করাও অনেক কষ্টের। দিন হাজিরা যা পাই, তা দিয়ে তেল, চাল কিনে সবজি কেনা কষ্টসাধ্য হয়ে যায়। এভাবে ফ্রিতে সবজি পাওয়াটা স্বপ্নের মতো লাগছে। এ ব্যাপারে পলাশবাড়ী প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম রতন জানান, এটি একটি মহৎ উদ্যোগ। আয়োজকদের উদ্দেশ্য সফল করতে তাদের প্রয়োজনীয় সাহায্য-সহযোগিতা করা হবে।

About parinews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*