Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে মাঠে বিদ্যুতের তার, সাঘাটায় এক ছাত্রের মৃত্যু

প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে মাঠে বিদ্যুতের তার, সাঘাটায় এক ছাত্রের মৃত্যু

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃস্কুলমাঠে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা করতে নিষেধ করেছিলেন প্রধান শিক্ষক। কিন্তু শোনেনি তারা। ফলে স্কুলমাঠ ও ভবনের চারপাশে দেওয়া হয় বিদ্যুতের তার। খেলতে গিয়ে সেই তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নীরব ইসলাম (১০) নামে ওই বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। 
শনিবার (১৪ মে) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া এলাকার কালপানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। মৃত নীরব ইসলাম ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিল। সে বোনারপাড়া এলাকার ভ্যানচালক জহুরুল ইসলামের ছেলে।প্রত্যক্ষদর্শী ও প্রতিবেশীরা জানান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল বাকি কয়েকদিন ধরে স্কুলমাঠে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা বন্ধ করে দেন। কিন্তু তারপরেও স্থানীয় শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করে আসছিল। পরে প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে স্কুলের দপ্তরি মো. নিলু মিয়া ভবন ও মাঠের চারপাশে বিদ্যুতের তার দিয়ে রাখেন। বিকেলে মাঠে খেলাধুলা করার সময় সেই তারে জড়িয়ে নীরব বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। কিছু সময় পর ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।
প্রতিবেশী ফরিদুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা বন্ধ করতে মাঠের চারদিকে তার দিয়ে রাখেন শিক্ষক। খেলতে গিয়ে সেই তারে জড়িয়ে মারা গেছে নীরব। ঘটনা জানাজানির পর প্রধান শিক্ষককে পাওয়া যাচ্ছে না।
এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের দপ্তরি নিলু মিয়া অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিকেল ৪টার পর স্কুল বন্ধ করে আমি বাড়িতে গেছি। এরপর কী হয়েছে জানি না।
এদিকে ঘটনার পর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল বাকি বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন। বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে কয়েকবার ফোন দেওয়া হলেও রিসিভ করেননি তিনি।এ বিষয়ে বোনারপাড়া ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য আফতাব আলী সরকার বলেন, শিক্ষকের এমন কাণ্ড মেনে নেওয়া যায় না। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।
বোনারপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাছিরুল আলম স্বপন বলেন, প্রধান শিক্ষক মাঠের চারপাশে তার দিয়ে রেখেছিলেন বলে শুনেছি। আমি ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। পরে বিস্তারিত জানাব।

About parinews