Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / প্রেমিকের সঙে দেখা করতে এসে প্রেমিকা লাঞ্ছিত,অবশেষে বিয়ে  

প্রেমিকের সঙে দেখা করতে এসে প্রেমিকা লাঞ্ছিত,অবশেষে বিয়ে  

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার সদর উপজেলার বাদিয়াখালী গ্রামীন ব‍্যাংক শাখার কেন্দ্র ব্যবস্হাপক প্রেমিক চাঁদ আলির সাথে কথা বলতে এসে তার প্রেমিকাকে  লাঞ্ছিত করায় গাইবান্ধা সদর থানায় ভুক্তভোগী উক্ত গৃহবধূ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।পরে তাদের বিয়ে এভিডেভিড মাধ্যমে সম্পন্ন।

অভিযোগে জানাযায়, ফুলছড়ি উপজেলার ফুলছড়ি গ্রামের জনৈক ব্যক্তির কন্যা (ফুলছড়ি গ্রামীণ ব‍্যাংক এর সদস্য )আদ্যক্ষর (সি)র সাথেসিরাজগন্জের উল্লাপাড়া গ্রামের, মো: চাঁদ মিয়া ফুলছড়ি উপজেলা গ্রামীণ ব‍্যাংকের (সাবেক ফিল্ড অফিসার ) এর সহিত উভয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
 সম্প্রতি মোঃ চাঁদ মিয়া ফুলছড়ি, উপজেলা থেকে গাইবান্ধা সদর উপজেলার,বাদিয়াখালী গ্রামীণ ব‍্যাংক শাখায় (ফিল্ড অফিসার )হিসেবে যোগদান করেন।  
গত ৫/৪/২২ইং  মঙ্গলবার উক্ত নারী  নিরুপায় হয়ে ভালোবাসার মানুষকে খুজতে গ্রামীণ ব‍্যাংক বাদিয়াখালি শাখায় গিয়ে প্রেমিকের সন্ধান পায় ।তখন দুজনের মধ‍্যে শুরু হয়ে যায় কথা কাটা কাটি  এক পর্যায়ে ফাঁস হয়ে যায় সব গোপন কথা।
এরপর চাঁন মিয়ার এসব প্রেমের কাহিনী উক্ত নারী স্হানীয় বাদিয়াখালী শাখার ম‍্যানেজার মোঃ আব্দুল বারীকে অবগত করে এর প্রতিকার চান এতে উক্ত কর্মকর্তা ও স্হানীয়দের মধ্যস্হতায় বিষয়টি মিটমাট করার জন্য চাঁদ আলির কাছ থেকে  মোটা অংকের টাকা লেনদেন করা হয়।
এতে উক্ত নারীর সম্মতি না থাকায় পরে তাকে লাঞ্ছিত করে সেখান থেকে বের করে দেয়া হয়।
পরে তাকে চিকিৎসার জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এ ঘটনায় উক্ত নারী  গ্রামীণ ব‍্যাংক বাদিয়াখালী শাখার  ব্যবস্হাপক সহ  ৪/৫ জন অফিস ষ্টাফ এর নামে গাইবান্ধা সদর থানায়  একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।পরে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের মধ্যস্হতায় সম্প্রতি এভিডেভিডের মাধ্যমে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এ বিষয়ে উক্ত নারী বলেন,চাঁদ আলির সাথে আমার বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে আমরা এখন ঢাকায় আছি।

About parinews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*