Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি শোক সভা

সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি শোক সভা

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধাঃ আদিবাসী বাঙালী সংহতি পরিষদ; সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের আয়োজনে ডঃ ফিলিমন বাসকের সভাপতিত্বে শনিবার জাতীয় আদিবাসী পরিষদের প্রয়াত সাধারন সম্পাদক সবিন চন্দ্র মুন্ডা’র অকাল মৃত্যুতে নাগরিক শোকসভা আয়োজন করা হয়।

নাগরিক শোকসভার শুরুতে প্রয়াত নেতা সবিন চন্দ্র মুন্ডার প্রকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞপন করা হয়। এরপর আলোচনাসভা, মোমবাতি প্রজ্জ্বলল এবং একটি শোক র‌্যালি করা হয়।শোকসভায় বক্তব্য রাখেন আদিবাসী বাঙালী সংহতি পরিষদের আহ্বাহক ও জেলা বার এ্যাসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু; জাতীয় আদিবাসী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক গনেশ মার্ডি; সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর কবীর তনু; আদিবাসী বাঙালী সংহতি পরিষদের সদস্য সচিব প্রবির চক্রবর্তী; জাতীয় আদিবাসী পরিষদের দপ্তর সম্পাদক সুবাস চন্দ্র হেমব্রোম; মার্কসবাদী ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা মৃনাল কান্তি বর্মন; মানবাধিকার কর্মী শহিদুল ইসলাম; সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব হাসান মোর্শেদ দিপন; সাহেবগন্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার করে কমিটির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম মাস্টার; আদিবাসী নেতা অ্যাডভোকেট বাবুল রবিদাস; সুফল চন্দ্র হেমব্রোম ; প্রিসিলা মুরমু; অলিভিয়া হেমব্রোম ; বৃটিশ সরেন; ময়নুল হক প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, সবিন চন্দ্র মুন্ডা সমতল আদিবাসীদের যাবতীয় স্বার্থ ও অধিকার আদায়ের জন্য আজীবন আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে এসেছেন।দেশের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছুটে গেছেন আদিবাসীদের অধিকার আদায়ে। ছুটে গেছেন পাহাড় এবং সমুদ্র উপকূলের নিপীড়িত জনপদে। সংহতি জানিয়েছেন দেশের গণ-আন্দোলনে, হয়ে উঠেছেন গণমানুষের এক বিশ্রামহীন নেতা। সবিন মুন্ডা যুক্ত হয়েছিলেন মধুপুর শালবনের ইকোপার্কবিরোধী আন্দোলনে, শামিল ছিলেন সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম ভূমি আন্দোলন সহ অসংখ্য আন্দোলনে। ছোটবেলা থেকেই তিনি ছিলেন প্রতিবাদী মানুষ। জেনেছি কৈশোরে এক মহাজন একবার কয়েক কৃষকের পাকাধানের বোঝা রাস্তা থেকে নিচে ফেলে দিয়েছিল, সবিন তার তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন।

ReplyReply allForward

About parinews