Breaking News
Home / জেলা সংবাদ / হাসপাতালে অনিয়মের প্রতিবাদ ও সুচিকিৎসার দাবিতে মানববন্ধন

হাসপাতালে অনিয়মের প্রতিবাদ ও সুচিকিৎসার দাবিতে মানববন্ধন

গাইবান্ধা প্রতিনিধি 
গাইবান্ধা জেনারেল (সদর) হাসপাতালে বিভিন্ন অনিয়মের প্রতিবাদে এবং সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৮ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে গাইবান্ধা জেলা শহরের ডিবি রোডের গানাসাস মার্কেটের সামনে এই কর্মসূচি পালন করে নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা) গাইবান্ধা জেলা শাখা। মানববন্ধনে বিভিন্ন সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, গাইবান্ধা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মকছুদার রহমান শাহান, গাইবান্ধা সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব হাসান মোরশেদ দিপন, জনস্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলনের সভাপতি শাহ শাহাদাৎ হোসেন সাগর, গাইবান্ধা উন্নয়ন ফাউÐেশনের সভাপতি মো. লিটন, নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা) গাইবান্ধা জেলা শাখার সভাপতি শেখ রহিত হাসান রিন্টু, সিনিয়র সহসভাপতি নাজিম আহমেদ রানা, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল লতিফ আকন্দ, দপ্তর সম্পাদক সঞ্জয় সাহা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক জিতু সরকার, নিচিচা সদর উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল হক সজিব ও সহসাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইমন প্রমুখ।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, জেলার ২৫ লক্ষাধীক মানুষের উন্নত চিকিৎসার একমাত্র ভরসাস্থল গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের ঘাটতি লেগেই রয়েছে। সেই সাথে শুন্য রয়েছে নার্স ও প্যাথলজিস্টসহ অন্যান্য বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদ। জরুরী বিভাগে ড্রেসিং করতে গেলেও টাকা দিতে হয়। দুপুর ১টা বাজলেই বন্ধ করে দেওয়া হয় বহির্বিভাগের টিকিট বিক্রি। এতে করে দূর-দূরান্তর থেকে যারা চিকিৎসা নিতে যান তারা ফেরত যান। বহির্বিভাগে সকাল সাড়ে আটটা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চিকিৎসা দেওয়ার কথা থাকলেও তা করা হয়না। বক্তারা আরও বলেন, বিভিন্ন ধরনের ওষুধ সংকট রয়েছে। এতে করে গরীব রোগীরা সমস্যার শিকার হন। প্রায়ই এক্সরে, ইসিজি ও আল্ট্রাসনোগ্রাম মেশিন নষ্ট থাকে। সেসব দ্রæত চালু করতে হবে। সব কাগজপত্র না থাকলেও চলছে ক্লিনিকগুলো। রোগীদের কাছে নেওয়া হচ্ছে অনেক টাকা। অপ্রয়োজনে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকগুলোতে। হাসপাতালে আরও অ্যাম্বুলেন্স বাড়াতে হবে। চিকিৎসা সেবার সঙ্গে জড়িত সকলকে জবাবদিহির আওতায় আনতে হবে। হাসপাতালের টয়লেটের দুর্গন্ধে কক্ষগুলোতে থাকা ভর্তি রোগীরা কষ্ট পাচ্ছেন। পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন নেই হাসপাতাল চত্ত¡র। সেইসাথে ছয়তলা বিশিষ্ট হাসপাতালের নতুন ভবনটির কাজ শেষ হওয়ার পরপরই তা ফেলে না রেখে দ্রæত চালু করার দাবি জানিয়েছেন বক্তারা।
মানববন্ধন শেষে বিভিন্ন দাবি সম্বলিত একটি স্মারকলিপি গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত¡াবধায়ককে দেন নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা) গাইবান্ধা জেলা শাখার সদস্যরা।

About parinews